বিরল রোগে আক্রান্ত কলকাতায় এক শিশু! এ রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন!

হাত-পা-নাক-চোখ-মুখ-কান থাকলেও বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুটি আর পাঁচটা সাধারণ শিশুর মতো নয়।

মাথার তালু ফুঁড়ে বেরিয়ে এসেছে মস্তিষ্কের একটা অংশ। আলাদা করে কপালের অস্তিত্ব বোঝা যাচ্ছে না। অক্ষিগোলক মিশে গেছে ব্রহ্মতালুর সঙ্গে।

চিকিৎসক-নার্সরা ইতিমধ্যেই তাকে ‘মনস্টার বেবি’ বলে ডাকতে শুরু করেছেন।

জন্মের পর থেকে এ ভীষণ দর্শন শিশুর ঠিকানা ভারতের কলকাতার ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এসএনসিইউ। ডাক্তাররা জানিয়েছেন, শিশুটি বিরল প্রজাতির ‘এনকেফালোসিল’ রোগে আক্রান্ত। ‘অ্যানেনকেফালি উইথ এনকেফালোসিল’ কোটিতে একজন শিশুরও হয় না এ রোগ। এতটাই বিরল! স্বাভাবিকভাবেই ডাক্তাররা দিশেহারা।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, রোগের উৎস এখনও অজানা। তবে একটা মহল জানিয়েছে, গর্ভাবস্থায় ছত্রাক সংক্রামিত বাদামজাতীয় কিছু খেলে গর্ভের সন্তান এমন অস্বাভাবিকতার শিকার হতে পারে। ভ্রুণের ‘নিউরাল টিউব’ বন্ধ না হওয়ায় এ বিপত্তি ঘটে। কন্যাসন্তানের মধ্যেই এ জন্মগত রোগ বেশি দেখা যায়। এক্ষেত্রে মস্তিষ্কের প্রকোষ্ঠগুলো ঠিকমতো তৈরি হয় না।

ডাক্তাররা আরো জানিয়েছেন, অপারেশন টেবিলে শিশুটির মৃত্যু হওয়ার সম্ভাবনাই ৯৯ শতাংশ।

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!