এক মাস থেকে এক বছর : শিশুর খাবার যেমন হবে

শিশুর খাবার নিয়ে অভিভাবকরা বেশ দুশ্চিন্তায় থাকেন। বিশেষ করে এক মাস থেকে এক বছরের শিশুর খাবার খাওয়ার বিষয়টি কেমন হবে, সেটি নিয়ে দ্বিধান্বিত হয়ে পড়েন অভিভাবকরা। কেননা, এ সময় থেকেই শিশু মায়ের দুধের পাশাপাশি বাড়তি খাবার খাওয়া শুরু করে। কেবল তাই নয়, খাবার খাওয়ার কোন পদ্ধতি শিশুর জন্য সুবিধাজনক হবে, সেটি নির্বাচনও একটি চ্যালেঞ্জের বিষয় হয়ে দাঁড়ায়।

জীবনধারাবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের স্বাস্থ্য বিভাগে প্রকাশিত হয়েছে এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন।

জন্মের পর থেকে ছয় মাস 
জন্মের পর থেকে ছয় মাস পর্যন্ত বুকের দুধই শিশুর জন্য যথেষ্ট। এ সময় বাড়তি খাবারের প্রয়োজন নেই।

ছয় থেকে এক বছর
ছয় মাস বয়স থেকে বুকের দুধের পাশাপাশি শিশুকে বাড়তি খাবার খেতে দিন। এ ক্ষেত্রে খিচুড়ি খেতে দিতে পারেন। প্রথমে চাল, ডাল ও তেল দিয়ে তৈরি করা খিচুড়ি দিন।

আস্তে আস্তে এতে সবজি যোগ করুন। এ ক্ষেত্রে নরম সবজি, যেমন—গাজর, আলু, পেঁপে ইত্যাদি দেওয়া যেতে পারে। ধীরে ধীরে মাছ, মাংস খাওয়ানো শুরু করুন। এ ছাড়া মুরগির স্যুপ, ডালের পানি ইত্যাদি দেওয়া যেতে পারে। অর্ধসিদ্ধ করে ডিম খেতে দিতে পারেন। পাশাপাশি নরম ফল, ফলের রস খেতে দিন। একসঙ্গে সব ধরনের ফল খাওয়ানো যাবে না। একটি ফলে অভ্যস্ত করে আরেকটি ফল খাওয়ান।

শিশুর খাবারে ঝাল, মসলা ও তেলের বিষয়ে সতর্ক হতে হবে। সাধারণত তিন ঘণ্টা ব্যবধানে শিশুকে খাবার খেতে দিন। খাবার খাওয়ানোর ক্ষেত্রে বাটি-চামচ ব্যবহার করুন।

Sharing is caring!

Comments are closed.