শিশুদের গরুর গোশত কখন খাওয়াবেন? ডাঃ মোঃ শাহিনুল ইসলাম, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

গরুর মাংস প্রায় সবারই একটি প্রিয় খাবার। তার মধ্যে যদি কোরবানির গরুর মাংস হয় তাহলে তো কথাই নেই। বিশেষ করে ঈদের দিনে রান্না করা গরুর মাংসের স্বাদ সবার কাছেই জানা। অনেকেই মুড়ি দিয়ে গরুর মাংস খেয়ে সারাদিন পার করে দেন। প্রাণীজ আমিষের মধ্যে গরুর মাংস একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান যার মধ্যে রয়েছে অন্যান্য উপাদানও যেমন ভিটামিন বি১২,ফলিক এসিড, আয়রন, জিংক যা শিশুর বেড়ে ওঠার জন্য উপকারী।

√কথা হলো আমাদের ছোট্ট শিশুরা কখন থেকে গরুর মাংস খেতে পারবে, কতটুকু খাবে এইসব প্রশ্ন অনেকের মধ্যেই হয়েছে। আজকে আমরা এসব প্রশ্নের উত্তর জানার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।

√জন্মের প্রথম ছয় মাস শিশুর খাবার হল শুধুমাত্র মায়ের বুকের দুধ। ছয় মাস পর থেকে বুকের দুধের পাশাপাশি বাড়তি খাবার দিতে হয়। মূলত ছয় মাস পর থেকেই শিশুকে গরুর মাংস খাওয়নো যায় তবে ভালো হল ৮ মাস বয়স থেকে দেওয়া। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই শিশুর খাবারের জন্য উপযুক্ত করে দিতে হবে। নতুবা খাবার গলায় আটকে গিয়ে বিপদের সম্ভাবনা রয়েছে। শুরুর দিকে কিমা বা ভর্তা করে খিচুড়ির সঙ্গে মিশিয়ে খাওয়ানো যায়।

√ গরুর মাংসে অনেক শিশুর অ্যালার্জি হতে পারে সেজন্য প্রথমদিকে এই খাবার একটানা ৩ থেকে ৪ দিন দিবেন কারণ এই সময়ে এলার্জি হলে বোঝা যাবে।
এক থেকে চার বছর বয়স পর্যন্ত দৈনিক দুই থেকে তিন আউন্স এর বেশি রেড মিট দেওয়া উচিত নয়।পাঁচ থেকে আঠারো বছর বয়স পর্যন্ত চার থেকে ছয় আউন্সের খেতে পারবে। তবে ঈদের সময় এইসব মেনে চলা কঠিন।

√আজকের এই আলোচনা আপনাদের কেমন লেগেছে তা অবশ্যই কমেন্টসে উল্লেখ করবেন আর শেয়ার করবেন ইনশাআল্লাহ।

ডাঃ মোঃ শাহিনুল ইসলাম
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য)
ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!