৬-২৩ মাস বয়সের শিশুদের ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টিকর রেসিপি

৬-২৩ মাস বয়সের শিশুদের ৫ টি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টিকর রেসিপি !

জন্মের ১ ঘন্টার মধ্যে শিশুকে শাল দুধ খাওয়াতে হবে। ৬ মাস বয়সের পর থেকে মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরের তৈরী বাড়তি খাবার খাওয়াতে হবে। আপনার শিশুকে কিভাবে বাড়তি খাবার রান্না করে খাওয়াবনে তার ৫ টি রেসিপি খুব সহজে আপনি অল্প সময়ে ঘরেই তৈরী করতে পারবেন।

মুরগীর মাংসের চপ

  • ধাপ-১ মুরগীর মাংশ ভালো করে ধুয়ে পরিস্কার করে ছোট করে কেটে নিতে হবে
  • ধাপ-২ এরপর মুরগীর মাংস সামান্য আদা-রসুন বাটা, পেয়াজ ও পর্যাপ্ত পরিমান পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিন!প্রয়োজন মত পাত্রটি ঢেকে নিবেন, মুরগীর মাংস ভালোভাবে সিদ্ধ করে নরম হলে ছাড়িয়ে নিন
  • ধাপ-৩ আলু ভালোমত সিদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে নিন ও ভালোকরে চটকে নিন।
  • ধাপ-৪ সবজি এবং পেয়াজ ভালোভাবে ধুয়ে ছোট ছোট করে কেটে নিন।

ধাপ-৫ সব গুলো উপকরন – মুরগীর মাংস, আলু, সবজী এবং চালের গুড়ো একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন! স্বাদ অনুযায়ী এতে লবণ যোগ করুন।

  • ধাপ-৬ মিশ্রন গুলো কয়েকটি ভাবে ভাগ করে ছোট ছোট গোলা কারের চপ তৈরি করুন!
  • ধাপ-৭ একটি কড়াইয়ে তেল গরম করুন, তেল গরম হয়ে গেলে এতে চপ গুলো ছেড়ে দিয়ে অল্প আচে ভেজে নিন, পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত

আর বাকী ৪ টি রেসিপি গুলো হলোঃ সবজি চাপরি, মুরগীর মাংসের খিচুরী, পুষ্টি গুড়া, সবজী চাপরী-২(৯মাস থেকে ২৩ মাস)

বিস্তারিত  ভিডিও তে দেখুনঃ ভিডিও এখানে

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!