শিশুর পা’য়ু’ পথের চু’লকানি

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় শিশুর পা’য়ু প’থের চু’লকানির কারণ হলো “পি’ন-ওয়া’র্ম” বা গুড়া কৃ’মি’র আ’ক্রম’ণ। অন্য কারন গুলোর মদ্ধ্যে আছে–হেমরয়েড/পাই’লস, পা’য়ুপ’থে ছত্ত্রা’কের আ’ক্র’মন ইত্যাদি।

এ ছাড়াও ডায়রিয়ার পর, গরমের দিনে ঘামের কারনে এবং অপরিস্কার থাকার কারণেও শিশুর পা’য়ু প’থে চুল’কানি হতে পারে। পা’য়ুপ’থে’ চুলকানির এ সমস্যাটি যেমন শিশুর জন্য বি’রক্তিক’র, তেমনি তার অবিভাবকদের জন্যও বি’ব্রত’কর । কোন অবিভাবকই চান না তার ছোট্ট পুতুলের মত বাবুটি জনসমক্ষে সেই বি’শেষ স্থা’নটি বারবার চু’লকাক। অতএব বাবা মায়েরা স্বাভাবিকভাবেই এই অবস্থা থেকে পরিত্রান পেতে চাইবেন।আর সে ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত ব্যবস্থাগুলো অনেকাংশেই সাহায্যে আসবে।

জায়গাটি শুষ্ক রাখতে হবে

খেয়াল রাখবেন আপনার শিশুর নি’ম্নদে’শ যেন ভি’জা না থাকে। কেননা ভি’জা স্থা’ন ছ’ত্রা’ক সং’ক্র’ম’ণের উপযুক্ত পরিবেশ। এ কারনে পা’য়ুপ’থে চু’লকা’নি হলে দিনে কমপক্ষে ৩-৪ বার শিশুর প্যা’ন্টি বদলে দিতে হবে। এবং ঘুমানোর মময় প্যান্টি বদলে দিতে হবে। এবং ঘুমানোর সময় প্যা’ন্টি খুলে রাখতে হবে।

আক্রান্ত স্থানে পাউডার ব্যবহার করুন

শিশুর নি’ম্নদেশ শু’ষ্ক রাখার জন্য ‘কন-স্টার্চ’ পাউডার ব্যবহার করা যেতে পারে। প্রথমে হাতে পাউডার ভালো করে ঝাকিয়ে শিশুর নি’ত’ম্বে’ ভালোভাবে লা’গিয়ে দিতে হবে।

শিশুর পা’য়খা’না রা’স্তা ভালোভাবে পরিস্কার করুন

প্রতিবার পা’য়খা’নার পর পা’য়ুপ’থ ভালো করে পানি দিয়ে ধুতে হবে এবং এরপর একটি শুষ্ক নরম কাপড় অথবা টিস্যু-পেপার দিয়ে স্থান টি মু’ছে দিতে হবে। শিশুকেও এভাবে পরিস্কার-পরিছন্ন থাকতে শেখাতে হবে।

শিশুকে বেশি আঁশযুক্ত খাবার খাওয়ান

বেশি আঁশ যুক্ত খাবার যেমনঃ শাক-সবজি, ফলমূল,শস্যদানা ইত্যাদি শিশুকে কোষ্ঠ’কাঠি’ন্যের হাত থেকে রেহাই দেবে যার ফলে শিশুর পা’ইলস/হেম’রয়েড হওয়ার ঝুকিও বহুলাংশে কমে যাবে। কেননা কোষ্ঠ’কাঠি’ন্যের ফলে পা’য়’খানা করার সময় যে বাড়তি চাপ প্রয়োগ করতে হয় তা পাই’লস/হে’মরয়েড হতে অথবা পূর্বে হওয়া হেম’রয়েডকে বাড়িয়ে দিতে সাহায্য করে।

আর যেহেতু হেমরয়েড থেকে রেহাই পেলে, শিশু পা’য়ু’প’থের চু’লকা’নি থেকেও রেহাই পাবে। শিশুকে অধিক আঁশযুক্ত খাবার খাওয়ানোর সাথে সাথে, অধিক পরিমাণ পানিও পান করাতে হবে। অপর দিকে কম আঁশযুক্ত খাবার যেমনঃ চকোলেট, পটেটো-চিপস, কেক, কুকিস ইত্যাদি কো’ষ্ঠকাঠি’ন্যের জন্য দায়ী বলে, এ খাবার গুলো শিশুকে অল্প পরিমাণে দিতে হবে।

শিশুর পা’য়ুপ’থে চু’লকানি উপশমের আরেকটি উপায়

সহ্যকর উষ্ণ পানিতে ৩-৪ চামচ সোডা গুলে একটি গামলা বা বাথটাবে নিয়ে তাতে শিশুকে ১৫ মিনিট বসিয়ে রাখতে হবে। পা’য়ুপ’থে চু’লকানি’র কারণ যা-ই হোক না কেন, তা উপশমে এ পদ্ধতিটি যথেষ্ট ফলপ্রসূ।

চু’লকানিতে ভে’সিলিন

চুল’কানির স্থানে সুগন্ধ বিহীন পেট্রোলিয়াম জেন (ভেসিলিন) লাগালে তা জায়গাটিকে ঢেকে রাখতে এবং চুলকানি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে।

শিশুর কাপড় ভালো করে ধুতে হবে

শিশুর কাপড় ধোওয়ার সময় ভালো করে লক্ষ রাখতে হবে  তাতে কাপড় কাচার সাবান লেগে আছে কিনা। কারণ এটিও অনেক সময় চুল’কানির কারণ হতে পারে। তাই শিশুর কাপড় সাবান লাগানোর পর প্র’চুর পরিমাণে পানি দিয়ে ভালো করে ধুতে হবে।

কখন ডাক্তারের শরণাপন্ন হবেন

পা’য়ুপ’থে চু’লকানির সাথে যদি–

  • শিশুর ওজন কমতে থাকে,ক্ষুদামন্দা হয়।
  • অথবা সবসময় পেট ফেঁপে থাকে তাহলে তাকে গুরু’তর স’মস্যা হিসেবে বিবেচনা করতে হবে এবং শিশুকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যেতে হবে।
  • এছাড়াও যদি পা’য়খা’নার রা’স্তা’য় যদি এমন কোন ক্ষ’ত থাকে যা থেকে র’সক্ষর’ণ হচ্ছে।
  • সাথে জ্বর,বমি বমি ভাব ইত্যাদি থাকলেও ডাক্তারের পরামর্শ মতো ব্যবস্থা নিতে হবে।
  • গু’ড়া কৃ’মি,ছ’ত্রা’কের আ’ক্রম’ণ,হে’ম’রয়েড/পাই’ল’স প্রভৃতি ক্ষেত্রেও ডাক্তারের পরামর্শ মত ওষুধ খেলে রোগের উ’পশম ত্ব’রান্বিত হবে।

ডাঃ সজল আশফাক-হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল,ইস্কার্টন গার্ডেন রোড ঢাকা-১০০০

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!