Home মায়ের গর্ভ সি সেকশন ডেলিভারি হলে দ্বিতীয়বার গর্ভাবস্থা কখন হওয়া উচিত?

সি সেকশন ডেলিভারি হলে দ্বিতীয়বার গর্ভাবস্থা কখন হওয়া উচিত?

8 second read
0
811

আপনি আবার গর্ভবতী হওয়ার কথা ভাবছেন? বিশেষ করে সি সেকশন হওয়ার পরে? সি সেকশন হোক বা নর্মাল ডেলিভারি, উভয় গর্ভধারণের মধ্যে যথাযথ ব্যবধান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল যে কেন ডাক্তাররা দ্বিতীয় গর্ভাবস্থা বিশেষত সি-সেকশনের বিশেষ ব্যবোধন দিতে বলেন। পুনরায় গর্ভধারণ করার আগে সমস্ত কারণগুলি ভালভাবে জানা যাক।
সাধারণভাবে, চিকিৎসা পরামর্শ অনুযায়ী, সি-সেকশনের পরে গর্ভধারণের জন্যে আপনাকে ছয় মাস অপেক্ষা করতে হবে। এবং এটি একটি বছরের বিরতি দিযে আরও ভাল হবে। বেশিরভাগ ডাক্তার এই সময়সীমা অনুসরণ করে মহিলাদেরকে একটি স্বাভাবিক ডেলিভারি করার পরামর্শ দেন। এই সময় আপনার ক্ষত এবং কাটা ছেঁড়া পূরণ করার জন্য যথেষ্ট। আসলে এই সময় সঠিক চিকিত্সা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আপনার শরীরকে আরও শক্তিশালী ও স্বাস্থ্যকর করে তোলা খুব জরুরি, বিশেষ করে যদি আপনি স্বাভাবিক ডেলিভারির মাধ্যমে আপনার দ্বিতীয় শিশুকে জন্ম দিতে চান। এমনকি যদি আপনি স্বাভাবিক প্রসবের কথা বিবেচনা না করেন, তবে এটি এক বছরের বিরতি দিলে ভাল যাতে আপনি ক্ষত থেকে বেরিয়ে আসতে পারে।

দ্বিতীয় গর্ভধারণের জন্য অপেক্ষা করার কেন উচিত?

পর্যাপ্ত চিকিত্সার জন্য – আপনি ১২-১৮ মাসের ব্যবধান লেগে যেতে পারে। অনুমান করুন একটি সুস্থ শিশুর জন্ম দিতে গিয়ে মায়ের শরীরের উপর কতটা গভীর প্রভাব পড়ে। আপনি প্রচুর পুষ্টি হারান এবং আপনার শরীরের সেটি ফিরে আসতে সময় প্রয়োজন। এছাড়াও, অধিকাংশ সি-সেকশন ডেলিভারিতে, নারীরা স্বাভাবিক প্রসবের চেয়ে বেশি রক্তক্ষরণ সহ্য করে থাকে, ফলে তাদের রক্ত পূরণ হওয়া খুব প্রয়োজন।
স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে – অনেক গবেষণা আছে, যা দেখায় যে সি-সেকশনের পরে গর্ভবতী মায়ের অনেক স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে। তাই এর পরে বেশি তাড়াতাড়ি দ্বিতীয়  ডেলিভারি হলে জরায়ুতে চাপ পরে ও এটি অকাল প্রসবের উচ্চ ঝুঁকি ডেকে আনতে পারে। এতে এমন একটি শিশুর জন্মের সম্ভাব্যতাও হতে পারে যার ওজন কম।
আপনি সঠিক পরিকল্পনাটি করতে পারেন – সঠিক সময় ব্যবধান থাকলে আপনি কোনও বড় স্বাস্থ্য ঝুঁকি ছাড়া একটি ভাল জীবন এবং ভাল ভবিষ্যত পরিকল্পনা দ্বারা একটি সঠিক অবস্থানে নিজেকে বজায় রাখতে পারেন। এই ১৮ মাসের সময়সীমায় আপনি আপনার বর্তমান শিশুর সঙ্গে গর্ভের সন্তানকে সমানভাবে উপভোগ করতে পারবেন।
স্বাস্থ্যের উন্নতি – নয় মাস গর্ভাবস্থায় এবং শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোর মাধ্যমে, আপনার শরীর থেকে গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি হ্রাস হয় যেমনআয়রন এবং ফোলেট। যদি আপনি আবার অল্প সময়ের মধ্যে গর্ভবতী হন, এবং আপনার সেই উপাদানগুলি পুনরুদ্ধার না হয়, তাহলে এটি আপনার এবং আপনার শিশুর স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করতে পারে।

সি-সেকশনের পর প্রাথমিক গর্ভাবস্থার ঝুঁকি কি?

কিছু গবেষণা এই প্রমাণটি সমর্থন করে যে সি সেকশনের পরে একটি বছরের মধ্যে সন্তান জন্ম দেওয়া ঝুঁকি বৃদ্ধি করতে পারে।

প্লাসেন্টা প্রিভিয়া – সি সেকশনের পরে কম সময় ব্যবধান থাকলে মহিলাদের প্লাসেন্টা প্রিভিয়া নামক একটি সমস্যা হতে পারে যেখানে জরায়ুর গায়ে প্লাসেন্টা লেগে সারভিক্সকে সম্পূর্ণভাবে বা অর্ধেকভাবে ঢেকে দিতে পারে।
প্লাসেন্টা অ্যাবস্ট্রাক্ট – সি সেকশনের পরে কম সময় ব্যবধান আপনাকে প্লাসেন্টা জরায়ুর থেকে সরে গিয়ে গুরুতর সমস্যা দিতে পারে।
প্রস্রাব প্রসারিত হওয়ার ঝুঁকি একটি সি-সেকশনের পরে স্বাভাবিক ঝুঁকি। বিশেষত যদি উভয় গর্ভধারণ একটি খুব সীমিত সময়সীমার মধ্যে হয়, তাহলে তা বেড়ে যায়। তবে এই সম্ভাবনাটি খুব কম যখন আপনাকে সেটি সি-টাইপ VBAC দিয়ে টানতে হবে।
তারিখেরআগে জন্ম – মা এবং শিশুর জন্য আপনার সময় ব্যবধান ছয় মাস বা তার কম হলে এটি সবচেয়ে বড় ঝুঁকি। সাধারণত এই পরিস্থিতি ডেলিভারির ৩৬-৩৭ সপ্তাহে হয়।
জন্মের সময় কম ওজন – যাদের সি-সেকশন হয় এবং তারা শীঘ্রই আবার মা হতে যান, তাঁরা ২.৫ কেজির কম ওজনের শিশুর জন্ম দেয়।

Source:tinystep

Load More Related Articles
Load More In মায়ের গর্ভ
Comments are closed.

Check Also

আপনি কি বাচ্চার জন্যে কাপড়ের ন্যাপি ব্যবহার করেন? সেটির ভালো ও খারাপ উভয় দিক সম্পর্কে জানতে চান?

আপনি কি সেইসব মায়েদের মধ্যে পড়েন যাঁরা কেনা ডাইপার ব্যবহার করতে দ্বিধা বোধ করেন? এখন এ ব্য…