গর্ভধারণের সময় স্বামীদের যা করা উচিত বা নয়

স্বামী, আপনি আমাদের গর্ভধারণের সময় একপ্রকার শক্তি এবং সমর্থন আশ্চর্যজনক স্তম্ভ হতে পারেন। আমরা জানি আপনি কোন ক্ষতি হতে দিতে পারেন না এবং আপনি বুঝতে পারবেন একটি মানুষের ক্রমবর্ধমান এর জন্য আমরা কি কি করে থাকি, কিন্তু জিনিষ সম্পর্কে যেতে উপায় আছে। কিন্তু আপনার স্ত্রী গর্ভবতী হওয়া পর উচিত নয় এমন ১২ টি জিনিষ যা আপনাকে মনে রাখতে হবে।

আপনার স্ত্রী সুন্দর

এই সময়ে স্বাবাভিক ভাবেই পেট বড় হবার কারণে আপনার স্ত্রীকে ঢাকতে ভালো নাও লাগতে পারে, কিন্তু তবুও আপনি বলবেন আপনার স্ত্রী খুব সুন্দর।

 মদ্য পান নয়

কখনো মদ্য পান করবেন না। এটি আপনার আপনার স্ত্রী এবং পরিবার জন্য ক্ষতি কারক।

যে ভাবেই হোক সাহায্য করুন

আপনার সঙ্গী যখন গর্ভবতী যখন বলুন – “কি ভাবে আমি তোমায় সাহায্য করতেপারি প্রিয়তমা?”

তাকে জিজ্ঞাসা করবেন না যে- তাঁকে কেন খারাপ দেখতে লাগছে।

আপনি কি জানেন সে যাই করুক না কেন কখনো সেটি খারাপ হবে না।

কখনো কখনো তার পা টিপে দিন।

যখন আপনি গর্ভবতী হয়ে থাকেন তখন সত্যিই স্বর্গের পাখির মতোই সুন্দর সব কিছু।

  • স্ত্রী সাথে তার সন্তান থাকা কালীন এই পদক্ষেপ গ্রহণ করুন
    ১. গর্ভবতী মহিলা ধীর গতিতে চলা ফেরা করে। এর মোকাবেলা করুন। সেই কারণে এই বিষয়ের ওপর কিছু বই পড়ুন।
  • ২. শিশুটি আসার আগেই স্ত্রীকে উত্তেজিত করবেন না, এই সময় আপনার বেশি কিছু করার দরকার নেই, নিজেকে শিক্ষিত করা বেশি প্রয়োজন, এবং নিজের আগ্রহের জন্য কিছু বই পড়ুন, তাতে স্ত্রী খুশি হবে।
  • ৩. সন্তান জন্ম দেবার সময় আপনি আপনার বন্ধুদের সাথে বেশি আলোচনা করবেন না, তাতে আপনার মন বিমুখ হতে পারে।
  • ৪. স্ত্রীকে আইস ক্রিম বা প্রিয় চকোলেট দিয়ে অবাক করতে পারেন।
  • ৫. প্রতিটি স্ত্রী সারপ্রাইস গিফট পেতে ভালো বাসেন।
  • ৬. আপনাদের সন্তানকে নিয়ে স্ত্রীকে চিন্তিত থাকতে বারণ করবেন।
  • ৭. ফোনে কথা বলুন বিশেষ করে গর্ভাবস্থার শেষের কাছাকাছি।
  • ৮. চিন্তা করবেন না আপনি বাবা হতে যাচ্ছেন তাই প্রতিশ্রুতি রাখুন।

tinystep

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!