শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্যে কখন চিকিৎসকের কাছে যাবেন?

অনেক শিশুই কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যায় ভোগে। সাধারণত সবজি, আঁশ জাতীয় খাবার খাওয়া, বেশি করে তরল পান ইত্যাদি সমস্যাকে কমিয়ে দিতে পারে।

তবে শিশুর কোষ্ঠকাঠিন্য অনেক সময়ই গুরুতর রোগের লক্ষণ হিসেবে দেখা দেয়। তাই যে শিশু বুকের দুধ খায়, তার একনাগাড়ে দুই থেকে তিন দিন পায়খানা না হলে তাকে অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতে হবে।

আর একটু বড় শিশুদের ক্ষেত্রে এখানে উল্লেখিত লক্ষণগুলো প্রকাশ পেলে তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া অবশ্য কর্তব্য।

লক্ষণগুলো হচ্ছে –

* যদি শিশুর প্রচণ্ড পেটের ব্যথার সঙ্গে পেট ফুলতে থাকে এবং শিশু ঠিকমতো খেতে না পারে ( আন্ত্রিক অবরোধ বা অন্ত্রের অন্য কোনো সমস্যার কারণেও এরকম ঘটতে পারে)।

* যদি পায়খানার সঙ্গে রক্ত আসে।

*  যদি কোনো আবেগজনিত কারণে টয়লেট ট্রেনিংয়ের সময় শিশু পায়খানা আটকে রাখে।

* যদি হঠাৎ করে শিশু অল্প একটু পায়খানা করে ফেলে। কারণ, অনেকদিনের পায়খানা জমতে জমতে শিশুর পায়ুপথের স্ফিংটার অনেক সময় অনিয়ন্ত্রিত হয়ে পড়লে এমনটি ঘটতে পারে।

লেখক : সহযোগী অধ্যাপক, হলিফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ

Source:ntv

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!