Home সোনামনির যত্ন নবজাতককে কোলে নেওয়ার পদ্ধতি

নবজাতককে কোলে নেওয়ার পদ্ধতি

3 second read
0
750

বাবা-মারা তাদের নতুন ইনিংস শুরু করার সময় আত্মবিশ্বাসি এবং খুশি থাকলেও কয়েকটা দিন যেতে না যেতেই তারা বুঝে যান বাচ্চা বড় করা মোটেও সহজ কাজ নয়। আমার সব কাজ ঠিক মতো করছি তো? এই ধরনের ধোঁয়াশায় ঘিরে থাকে বাবা-মায়েদের মন। সেই সঙ্গে তারা এটা বুঝে উঠতে পারেন না নবজাতককে কোলে নেবেন কীভাবে। অনেকেই প্রথম প্রথম এই একটা ব্য়পার বেশ সমস্য়ায় পরেন। আপনার অবস্থাও যদি এরকমই হয়, তাহলে পড়ে ফেলুন বাকি প্রবন্ধটা। বাচ্চাকে কীভাবে কোলে নেওয়া উচিত সে ব্য়পারে বাবা-মায়েদের জেনে নেওয়াটা আবশ্য়িক। কারণ জন্মানোর পরে অনেক দিন পর্যন্ত বাচ্চার ঘার শক্ত হয় না। তাই এই সময় যদি বাচ্চাকে ঠিক মতো কোলে নেওয়া না যায়, তাহলে তাদের ঘারে আঘাত লাগার আশঙ্কা থাকে। চলুন তাহলে এবার জেনে নেওয়া যাক নবজাতকদের কোলে নেওয়ার নানা পদ্ধতি সম্পর্কে।

কীভাবে বাচ্চাকে কোলে নিলে আপনার সুবিধা হয় তা বুঝে নিন: নানাভাবে বাচ্চাকে কোলে নেওয়া যায়। কিন্তু কীভাবে নিলে আপনার সুবিধা হয়, সেটা আপনাকেই বুঝে নিতে হবে। আর যদি দেখেন এ বিষয়ে বুঝতে খুব অসুবিধা হচ্ছে, তাহলে একজন অভিজ্ঞ মায়ের সঙ্গে পরামর্শ করে নিতে ভুলবেন না।

ধীরে ধীরে শিখুন: বাচ্চাকে তখনই কোলে নিন, যখন তাকে ভালো করে ধরতে পেরেছেন। আর সেটা করবেন কীভাবে? খুব সহজ। প্রথমে বাঁ হাতের তালু দিয়ে বাচ্চার মাথার পিছনে রাখুন, আর ডান হাত দিয়ে বাচ্চার কোমরটা ধরুন। দেখবেন ভালো গ্রিপ পাবেন। আর এই অবস্থায় তাকে কোলে তুলে নিতে দেখবেন কোনও অসুবিধাই হচ্ছে না। এখনও যদি বুঝতে না পারেন তাহলে চিকিৎসকের সঙ্গে আলোচনা করুন। তিনি আপনাকে হাতে কলমে দেখিয়ে দেবে।

সাবধানতা অবলম্বন করুন: বাচ্চাকে কোলে নেওয়া সময় একটা হাত অবশ্য়ই তার মাথা বা ঘারের কাছে রাখবেন। যেমনটা আগেও বলেছি। জন্মের পরে বাচ্চার ঘার শক্ত হতে সময় লাগে। এই সময় তাই অতিরিক্ত সাবধান হওয়াটা জরুরি। নচেৎ ঘারে লেগে গিয়ে বড় কোনও সমস্য়া হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়।

দি ক্রেডেল হোল্ড: বুঝতে পারলেন না তো কী বলছি। ক্রডেল হোল্ড বলতে বোঝায়, বাচ্চাকে যখনই কোলে নেবেন তখন তার মাথাটা বুকের কাছে নিয়ে নেবেন। তারপর ধীরে ধীরে অন্য় হাতটা মাথার কাছে নিয়ে গিয়ে ঘারটা ধরবেন। এই পদ্ধতিটি সবথেকে সহজ এবং নির্ভরযোগ্য়।

শোলডার হোল্ড: বাচ্চাকে কোলে নিয়ে ধীরে ধীরে বুকের কাছে নিয়ে আসুন। তারপর তার মাথাটা আপনার কাঁধের উপর রেখে দিন। অপর হাত দিয়ে ঘারটা ধরুন। বাচ্চাকে ঘোরানোর সময় এই পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে পারেন।

ভালো করে ধরুন বাচ্চাকে: বাচ্চাকে সব সময় শরীরের কাছাকাছি রাখবেন। এমনটা করলে আপনার বাচ্চা নিরপদ মনে করবে, সেই সঙ্গে আপনারও সুবিধা হবে তাকে কোলে নিতে।

Source: boldsky

Load More Related Articles
Load More In সোনামনির যত্ন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Check Also

শিশুর বেড়ে ওঠা । ষষ্ট মাস

পঞ্চম থেকে ষষ্ঠ  মাস আপনার বাচ্চার বৃদ্ধির ক্ষেত্রে একটি নতুন অধ্যায় এর সূচনা। এ সময় বাচ্চ…