শিশুর নাকে পানি ঝরায় করণীয়

শিশুর নাক দিয়ে যখন প্রায়ই পানি ঝরে তখন বিষয়টি নিয়ে বাবা-মা চিন্তিত না হয়ে পারেন না। নাকের এই পানিকে সরাসরি পানি না বলে শ্লেষ্মা বলাই শ্রেয়। সাধারণত চার থেকে আট বছর বয়সের শিশুদের মধ্যে নাকে শ্লেষ্মা ঝরার সমস্যা দেখা যায়। এ বয়সে ঘন ঘন ঊর্ধ্ব শ্বাসনালির প্রদাহ আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি শিশুদের নাক দিয়ে শ্লেষ্মা ঝরার কারণ বলে মনে করা হয়। সাধারণ ভাবে অ্যালার্জি সমস্যায় আক্রান্ত শিশুদের মধ্যে নাক দিয়ে শ্লেষ্মা ঝরার সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। তবে দরিদ্র পরিবারের পুষ্টিতে ভোগা শিশুদের মধ্যেও এ ধরনের সমস্যা বেশি দেখা যায়। কারণ এ ধরনের শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। এ ছাড়াও শিশুদের আশপাশে ধূমপান করার ফলে অর্থাৎ পরোক্ষ ধূমপানের কারণেও অনেক শিশু নাকের শ্লেষ্মা ঝরার সমস্যায় ভুগে থাকে।

নাক দিয়ে পানি বা শ্লেষ্মা ঝরার অন্যতম কারণ :

  • ভাইরাস জনিত নাকের ইনফেকশন
  • অ্যালার্জি জনিত নাকের ও সাইনাসের প্রদাহ
  • সাইনোসাইটিস
  • শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকা
  • নাকের গহ্বরে কোনো বস্তু আটকে থাকা
  • নাকের ঝিলি্লস্থ সিলিয়ার অস্বাভাবিক গতিময়তা, অস্বাভাবিক শ্লেষ্মা, ঝিলি্লস্থ গ্রন্থির অস্বাভাবিকতা ইত্যাদি।

অনবরত কিংবা প্রায়শ নাকের পানি বা শ্লেষ্মা ঝরা একটি সমস্যা হলেও নাকের ঝিলি্লর এই নিঃসরণের রয়েছে প্রতিরোধ ক্ষমতা। নাকের কার্যক্ষমতা বজায় রাখতে এবং বাহ্যিক প্রতিকূল পরিবেশ থেকে নাককে রক্ষা করতে ভূমিকা রাখে এই শ্লেষ্মা। এ ধরনের সমস্যা মাসের পর মাস চলতে থাকলে একজন নাক, কান, গলা বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে বের করতে হবে সমস্যার কারণ। রোগ নির্ণয় হলে, নির্নীত কারণ অনুযায়ী চিকিৎসা করলেই সমস্যার সমাধান খুঁজে পাওয়া সম্ভব হবে।

সূত্র – যায়যায়দিন

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!