বায়ু দূষণে শিশুর অ্যালার্জি

বায়ু দূষণ শিশুর দেহে অ্যালার্জি বৃদ্ধির অন্যতম কারণ হিসেবে কাজ করে। সম্প্রতি ইউনির্ভাসিটি অব ব্রিটিশ কলম্বিয়ার একটি নতুন গবেষণায় উঠে এসেছে এই তথ্য। গবেষণায় বলা হয়, জন্মের পর প্রথম বছরের মধ্যে যেসব শিশুর বাইরের বায়ু দূষণের মধ্যে আনা হয় তাদের অ্যালার্জির ঝুঁকি বহুগুণে বেড়ে যায়। এ ছাড়া খাবার, পোষা প্রাণী ইত্যাদি থেকেও অ্যালার্জি হতে পারে।

এনভাইরনমেন্টাল হেলথ পার্সপেকটিভ জার্নালের বরাত দিয়ে ভারতীয় ওয়েবসাইট এনডিটিভি প্রকাশ করেছে এই বিষয়ে একটি প্রতিবেদন।

গবেষণাটিতে বলা হয়, শিশুর প্রথম বছরে অ্যালর্জির সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে যানবাহনের ধোয়া ও বায়ু দূষণের।

গবেষণাটির প্রধান লেখক এবং ইউনির্ভাসিটি অব ব্রিটিশ কলম্বিয়ার অধ্যাপক মাইকেল ব্রাওয়ার বলেন, এই সংক্রান্ত এটিই প্রথম গবেষণা।

গবেষণার আরেকজন লেখক হিন্দ সিভি বলেন, গবেষণাটির ফলে প্রাথমিক বয়সে শিশুদের অ্যালার্জি প্রতিরোধের একটি নতুন ধারণা পাওয়া গেল।

গবেষণায় আরো বলা হয়, যেসব শিশু পশমযুক্ত পোষা প্রাণীর সংস্পর্শে আসে তাদের ক্ষেত্রেও অ্যালার্জি বৃদ্ধির আশঙ্কা থাকে।

গবেষণাটিতে অংশ নেয় কানাডার তিন হাজার ৫০০টি পরিবার। এখানে ১০টি বিষয়ের ওপর অ্যালার্জির স্পর্শকাতরতা নিয়ে গবেষণা করা হয়। এগুলো হলো- বিড়াল, কুকুর, তেলাপোকা, ফাঙ্গাস, দুধ, ডিম, সয়া এবং বাদাম।

গবেষণায় দেখা যায়, এক বছরের শিশুদের মধ্যে অ্যালার্জি বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। তবে সন্তানসম্ভবা মা এবং তার পেটের শিশুর ক্ষেত্রে এই ধরনের অ্যালার্জির কোনো সম্পর্ক পাওয়া যায়নি।

Sharing is caring!

Comments are closed.

error: Content is protected !!